আপডেট : ৭ এপ্রিল, ২০১৮ ১৯:১৩

স্বামীকে বেঁধে রেখে গৃহবধূকে গণধর্ষণ, আটক ২

অনলাইন ডেস্ক
স্বামীকে বেঁধে রেখে গৃহবধূকে গণধর্ষণ, আটক ২

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে এক গৃহবধূ গণধষর্ণের শিকার হয়েছেন। শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতে স্বামীর হাত-পা বেঁধে তাকে গণধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় আজ শনিবার দুপুরে ৭ জনের নাম উল্লেখ করে ঈশ্বরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ওই গৃহবধূ। এর প্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

জানা যায়, নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূর গ্রামের বাড়ি জামালপুরের মেলানন্দহ এলাকায়। তিনি ভালুকার একটি টেক্সটাইল মিলে চাকরি করার সুবাদে ঈশ্বরগঞ্জের উচাখিলা মরিচার চরের এক যুবকের সাথে প্রেমে জড়িয়ে দুই মাস আগে বিয়ে করেন। শুক্রবার চাকরির ছুটিতে স্বামীর সঙ্গে শ্বশুর বাড়ি বেড়াতে আসেন তিনি। রাত ১টায় এলাকার কিছু পরিচিত ব্যক্তি তার স্বামীকে ডেকে ঘর থেকে বের করে এনে হাত-পা বেঁধে ফেলে। তারপর ওই গৃহবধূকে পাশের বালুর চরে নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ধর্ষণে ৭ জন অংশ নেয় বলে জানিয়েছেন নিয়াতিতা গৃহবধূ। 

পরে বিষয়টি নিয়ে আজ শনিবার সকালে ঈশ্বরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন তিনি। মামলার প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত তরন মিয়া (৩০) ও আবুল বাশারকে (৩২) আটক করেছে পুলিশ।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) গোলাম মওলা জানান, ধর্ষণের ঘটনা শুনে এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত দুইজনকে আটক করা হয়েছে। এর সাথে জড়িত অন্যদেরও আটকের চেষ্টা অব্যাহত আছে। 

উপরে