আপডেট : ৯ এপ্রিল, ২০১৮ ২০:১৮

প্রেমিকাকে ধর্ষণের পর হত্যা, ধানক্ষেতে লাশ

অনলাইন ডেস্ক
প্রেমিকাকে ধর্ষণের পর হত্যা, ধানক্ষেতে লাশ

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে কোহিনুর বেগম নামে এক তরুণীকে গণধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে প্রেমিকের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ওই প্রেমিককে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (০৯ এপ্রিল) ভোরে উপজেলার পশ্চিম চরকলাকোপা এলাকার একটি ধানক্ষেত থেকে কোহিনুরের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে নিহতের পরিবারের অভিযোগের প্রেক্ষিতে সকালে তার প্রেমিক দুলাল হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ। আটক দুলাল সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়নের চরমনসা এলাকার হেজু মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, কোহিনুর শনিবার সকালে চরমনসা গ্রামের বাড়ি থেকে বের হয়। পরে তিনি বাড়িতে ফিরেনি। খোঁজ নিয়ে স্বজনরা জানতে পারেন, তাকে মোবাইল ফোনে খবর দিয়ে ঘুরতে যাওয়ার কথা বলে প্রেমিক দুলাল অজ্ঞাতস্থানে নিয়ে যায়। এরপর আর তার খোঁজ পাওয়া যায়নি।

সোমবার রামগতির পশ্চিম চরকলাকোপা গ্রামে ধানক্ষেতে একটি মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দেয়। স্বজনরা ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মরদেহ শনাক্ত করেন।

স্থানীয়রা জানায়, দুলাল তার বন্ধুদের নিয়ে ওই তরুণীকে গণধর্ষণ করেছে। পরে পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যার পর মরদেহ ধানক্ষেতে ফেলে যায়।

এ ব্যাপারে রামগতি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ টি এম আরিছুল হক জানান, ওই নারীকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত দুলালকে চরমনসা গ্রাম থেকে আটক করা হয়। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপরে