আপডেট : ২১ জুলাই, ২০১৮ ১১:৪৫

লোকলজ্জার ভয়ে সদ্যজাতকে খুন করেছেন দম্পতি

অনলাইন ডেস্ক
লোকলজ্জার ভয়ে সদ্যজাতকে খুন করেছেন দম্পতি

তারা দাদাদাদি হয়েছেন অনেক আগেই। মেয়েরও বিয়ে হয়ে গেছে। বুড়ো বয়সে এসে পরিবার ও  প্রতিবেশীদের থেকে কটাক্ষ শুনতে হবে ভেবে সদ্যজাত কন্যার গলা টিপে হত্যা করেছে এক দম্পতি!

কেউ যাতে কিছুই না জানতে না পারে, সেজন্য মরদেহ ফেলে দেওয়া হয় পুকুরে! এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে ভারতের জলপাইগুড়িতে। বিষয়টি জানাজানি হতেই ওই দম্পতিকে আটক করেছে পুলিশ।  

জানা গেছে, ওই দম্পতি কোচবিহারের। তিন মেয়ে, জামাই, দুই ছেলে এবং বেশ কয়েকজন নাতি-নাতনি নিয়ে ভরা সংসার। এরই মাঝে গর্ভে আসে আরেক সন্তান।

স্বামী-স্ত্রীর মনে হয় এবার আর লোকের কাছে মুখ দেখানো যাবে না। বাড়িতেও কথা শুনতে হবে। এমতাবস্থায় স্ত্রীকে নিয়ে গত শনিবার জলপাইগুড়ির এক আত্মীয়ের  বাড়ি চলে যান স্বামী। সেখানেই সন্তানের জন্ম হয়। আর তার পরই সদ্যজাতকে খুন করে পুকুরে ফেলে দেয় দম্পতি।

পরদিন সকালে পুকুরে সদ্যজাতকে ভাসতে দেখে থানায় খবর দেওয়া হয়। মরদেহ উদ্ধার করে তদন্তে নামে পুলিশ। একপর্যায়ে সন্দেহের তির যায় ওই দম্পতির দিকে।

জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারাই নিজেদের সদ্যজাত কন্যাকে গলা টিপে হত্যা করেছে। পরে ময়নাগুড়ি থানার পুলিশ তাদের আটক করে নিয়ে যায়। আদালত তাদের তিন দিন পুলিশি হেফাজতে রেখে পুনরায় জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দেন।  

 
 
 
 
উপরে