আপডেট : ১০ এপ্রিল, ২০১৮ ১৬:০৪

মান্নানের বাসায় হাসান উদ্দিন সরকার

অনলাইন ডেস্ক
মান্নানের বাসায় হাসান উদ্দিন সরকার

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র অধ্যাপক এমএ মান্নানকে দেখতে যাচ্ছেন এ সিটিতে বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার।

মঙ্গলবার (১০ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর বারিধারা ডিওএইচএসের বাসায় মান্নানের সঙ্গে তার সাক্ষাৎ করার কথা রয়েছে। এ জন্য হাসান উদ্দিন সরকার তার টঙ্গীর বাসা থেকে ঢাকার পথে রওনা হয়েছেন।

সোমবার রাতে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে গাজীপুর-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা হাসান উদ্দিন সরকারকে মেয়রপ্রার্থী ঘোষণা করে বিএনপি।

এর পর দিনই অসুস্থতার খবরে বর্তমান মেয়র অধ্যাপক এমএ মান্নানকে দেখতে তার বাসায় যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন হাসান উদ্দিন সরকার।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে এবারও মেয়র পদে দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক মেয়র অধ্যাপক এম এ মান্নান। তবে আলোচনা শেষে গাজীপুরে হাসান উদ্দিন সরকার ও খুলনায় নজরুল ইসলাম মঞ্জুর নাম ঘোষণা করেছে বিএনপি।

এদিকে দলীয় সূত্রে জানা গেছে, গাজীপুর থেকে ৭ জন মনোনয়ন চাইলেও মূল প্রত্যাশী ছিলেন অধ্যাপক এম এ মান্নান এবং হাসান উদ্দিন সরকার। তবে তৃণমূল নেতাদের মতামতের ভিত্তিতে দলের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে গভীর পর্যালোচনা করেই হাসান উদ্দিন সরকারকে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে।

গত ৮ এপ্রিল চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার দিতে এসে অধ্যাপক এম এ মান্নান জানিয়েছিলেন, ‘গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে তিনিই বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছেন।’ তবে তিনি যখন কথা বলছিলেন তখন তাকে শারীরিকভাবে স্বাভাবিক দেখাচ্ছিল না। তার শরীরে কাঁপুনি লক্ষ্য করা গেছে। এছাড়া নির্বাচনে অংশ নেয়ার জন্য শারীরিকভাবে ঠিক আছেন কি না -সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবও দেননি তিনি।

দলের নেতারা তাকে ডেকে নিয়ে কী বুঝিয়েছেন তা জানা না গেলেও শারীরিক বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন তারা। দলের হাইকমান্ড মনে করেন, অধ্যাপক আব্দুল মান্নান শারীরিকভাবে সক্ষম নয়। ফলে গাজীপুরে বিএনপিকে শক্তিশালী করতে এই মুহূর্তে সরকার পরিবারের বিকল্প নেই। এছাড়া খুলনায় দলের অভ্যন্তরীণ কোন্দল থামিয়ে বিএনপিকে আরও সুসংগঠিত করতে নজরুল ইসলাম মঞ্জুর ব্যাপারে আগেই দলের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত ছিল।

অন্যদিকে গাজীপুর সিটি নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবি জানিয়েছে বিএনপি। বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমরা আশা করি অতীতের মত জনগণ আমাদের সঙ্গে থাকবে। গতবারে গাজীপুর লক্ষাধিক ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেছি, খুলনায়ও ৬০ থেকে ৭০ হাজার ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেছি। আমরা সম্পূর্ণ নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রত্যাশা করছি।’

উপরে